• বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩৩ অপরাহ্ন
  • English Version
Notice :
***শর্ত সাপেক্ষে সাংবাদিক নিয়োগ দিচ্ছে সংবাদ২৪**আগ্রহীরা সিভি পাঠান এই ইমেইলেঃinfo@shangbad24.com

বৃষ্টি সম্পর্কে বিস্ময়কর ১২টি তথ্য যা আপনি আগে হয়তো জানতেন না

সংবাদ২৪ ডেস্ক
আপডেট মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

অ্যান্টার্টিকা যে পৃথিবীর সবচেয়ে শুকনো অঞ্চল, বৃষ্টিবিহীন বিস্ময়কর ভূমি, সেটা কি আপনার জানা আছে?

আপনি কি জানেন কোথায় বৃষ্টির সঙ্গে সালফিউরিক এসিড পড়ে?

কিংবা আপনার কি জানা আছে কেন পৃথিবীর কিছু অঞ্চল কখনোই বৃষ্টির ভালবাসা পায় না?

আপনাকে জানানোর জন্যেই বৃষ্টি সম্পর্কে বিস্ময়কর কিছু তথ্য নিয়ে হাজির হলাম।

বৃষ্টি সম্পর্কে তথ্য

১. সব বৃষ্টিই পানি দিয়ে তৈরি নয়
বৃষ্টি মানেই পানি, আমরা সবাই জানি; তবে এ জানাটা কিন্তু সব সময় সত্যি নয়। ভেনাসসহ বিশ্ব ভ্রমান্ডের অনেক গ্রহেই বৃষ্টি হিসেবে পানির পরিবর্তে মিথেইন গ্যাস কিংবা সালফিউরিক এসিড ঝরে। এমনকি, বিজ্ঞানীরা ৫ হাজার আলোকবর্ষ দূরের একটি গ্রহে লোহার বৃষ্টির সন্ধ্যান পেয়েছেন।

২. পৃথিবীর সবচেয়ে কম বৃষ্টির অঞ্চল মরুভূমি নয়, অ্যান্টার্টিকা
অ্যান্টার্টিকা যদিও বরফ দিয়ে ঢাকা, কিন্তু প্রতি বছর এখানে মাত্র ৬,৫ ইঞ্চি বৃষ্টি হয় যা মরুভূমির চেয়ে কম।

৩. মাটিতে পড়ার আগেই বৃষ্টি বাষ্প হয়ে যায়
পৃথিবীতে এমন কিছু শুকনো ও গরম স্থান রয়েছে যেখানে বৃষ্টি মাটিতে পড়তে পারে না, পড়ার আগেই বৃষ্টির ফোঁটাগুলো বাষ্প হয়ে বাতাসে ভেসে যায়। এটাকে ফ্যান্টম রেইন বলে।

৪. মেঘের আকার ও রং দেখে বৃষ্টির পূবার্ভাস দেয়া যায়
সাধারণভাবে বলতে গেলে, লম্বা, দমকা কিন্তু উপরের দিকে সমতল আকারের মেঘ অথবা ধূসর রঙের সমতল মেঘ দেখে আপনি নিশ্চিত হতে পারেন যে ২৪ ঘন্টার মধ্যে বৃষ্টি হবে।

৫. বৃষ্টির গন্ধ আছে
বিশ্বাস করুন বা না করুন, বৃষ্টির কিন্তু গন্ধ আছে। যখন বৃষ্টি পড়ে, তখন মাটিতে বসবাসকারী জিওসমিন নামক এক ধরণের ব্যাকটেরিয়া বাতাসে এক ধরণের কেমিক্যাল ছড়ায়। আর তখনই পেট্রিচোর নামে বাতাসে এক ধরণের গন্ধ তৈরি হয়।

৬. ২৪ ঘন্টায় ৪৯.৬৯ ইঞ্চি বৃষ্টি
২০১৮ সালের এফ্রিল মাসে যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়ালিয়ান শহরের হানালিতে সর্বোচ্চ বৃষ্টির রেকর্ড করা হয় যা ছিল ৪৯.৬৯ ইঞ্চি। এর আগের রেকর্ডও ছিল যুক্তরাষ্টের যা একই বছরে ৪৩ ইঞ্চি ছিল।

৭. আফ্রিকার মুদ্রার নাম বৃষ্টি
আফ্রিকার বোটসওয়ানায় বৃষ্টির দেখা পাওয়া এতই বিরল যে, তারা তাদের মুদ্রার নাম রেখেছে Pula যার মানে বৃষ্টি। তাদের কাছে বৃষ্টি যেমন দুষ্প্রাপ্য, টাকাও তেমন দুষ্প্রাপ্য।

৮. প্রতিদিন বৃষ্টি হয় যেখানে
ভারতের মেঘালয়ে প্রতিদিনই বৃষ্টি হয় যা পৃথিবীর সবচেয়ে ভেজা স্থান হিসেবে বহু আগেই গ্রীনিস রেকর্ডে নাম তুলেছে।

৯. বৃষ্টি যেখানে কখনোই থামে না
হাইয়াই দ্বীপের Mount Waialeale-তে কখনোই বৃষ্টি থামে না। অর্থাৎ, প্রতি মূহুর্তে, প্রতি মিনিটে, প্রতি সেকেন্ডে বৃষ্টি হয়।

১০. বিশুদ্ধ পানির প্রায় সবই বৃষ্টি থেকে
পৃথিবী যে পরিমাণ বিশুদ্ধ পানি পায়, তার প্রায় সবই আসে বৃষ্টি থেকে।

১১. বৃষ্টির ফোঁটা হ্যাম বার্গার
বৃষ্টির ফোঁটার আকৃতি আমরা চোখের জলের মতো দেখলেও মাঝে মাঝে হ্যামে বার্গারের মতো বৃষ্টির ফোঁটা পড়তে দেখা যায়।

১২. প্রতি বছর মাছের বৃষ্টি
হন্ডুরাসের বিভিন্ন অঞ্চলে প্রতি বছর ‘মাছ বৃষ্টি’ হয় যা সেখানে Lluvia de Peces নামে পরিচিত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ