• বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৫৮ অপরাহ্ন
  • English Version
Notice :
***শর্ত সাপেক্ষে সাংবাদিক নিয়োগ দিচ্ছে সংবাদ২৪**আগ্রহীরা সিভি পাঠান এই ইমেইলেঃinfo@shangbad24.com

শিবগঞ্জের উথুলীতে পারিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে বসত বাড়িতে হামলা

রবিউল ইসলাম রবি / ৮৫ দেখেছেন
আপডেট রবিবার, ২৩ আগস্ট, ২০২০

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের উথুলীতে পারিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে বসত বাড়িতে হামলা, আসবাবপত্র ভাংচুর।

জানা যায়, শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তোফায়েল আহম্মেদ সাবু উথুলী গ্রামের আপন সহদর দুই ভাই বিধান চন্দ্র সাহা ও কল্যাণ চন্দ্র সাহা’র অনুরোধে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে পূর্ব সৃষ্ট পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে দ্বন্দ্ব মিমাংসা করার জন্য ঘটনাস্থলে গেলে দুই ভাই চেয়ারম্যানের সামনে কথা-কাটাকাটি শুরু করে, চেয়ারম্যান উভয় পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা করলেও উভয় পক্ষ সংঘাতে জড়ায়। এরই এক পর্যায়ে বৈঠকে উপস্থিত থাকা চয়ন কুমার সাহা, প্রদ্যুত কুমার সাহা, পরিমল কুমার সাহা বিধান চন্দ্র সাহা, বিশ্বজিৎ কুমার সাহা হঠাৎ আক্রমণাত্মক হয়ে কল্যাণ চন্দ্র সাহা ও তার ছেলে পার্থ কুমার সাহাকে নিজ বাড়িতে মারতে আসলে বাবা ছেলে বাধা দিলেও বিধান চন্দ্রগংরা কল্যাণ চন্দ্র সাহা’র বাড়ির আসবাবপত্র ভাংচুর করে। চেয়ারম্যান এক পর্যায়ে উভয় পক্ষকে শান্ত করতে সক্ষম হন। খবর পেয়ে শিবগঞ্জ থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গেলে পরিস্থিতি একেবারে শান্ত হয়ে যায়। চেয়ারম্যান ও পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে চলে আসলে আবারও বিধান চন্দ্র সাহা গংরা কল্যাণ চন্দ্র সাহা’র বাড়িতে হামলা করার জন্য আসলে কল্যাণ চন্দ্র সাহা কোন উপায় না পেয়ে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে সহায়তা চান। শিবগঞ্জ থানা থেকে এসআই আবুল কালাম আজাদ সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে পুনরায় গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহম্মেদ সাবু বলেন, পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে সৃষ্ট সমস্যার সমাধান করতে গেলে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয় পক্ষ দ্বন্দ্ব সংঘাতে জড়ে পরে।

শিবগঞ্জ থানার এসআই আবুল কালাম আজাদ বলেন, জমাজমি সংক্রান্ত জেরে তারা সংঘাতে লিপ্ত হয়েছিলো, পরিস্থিতি শান্ত করে সমস্যার সমাধানের জন্য উভয় পক্ষকে থানায় ডেকেছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও সংবাদ